শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নিকলীতে দুটি ড্রেজারসহ ৫ জন গ্রেফতার। লোহাগড়ায় শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হাওরে অবৈধ ভাবে বালু উওোলনের মহোৎসব, হুমকিতে তীরবর্তী গ্রাম। খানসামায় বিপদসীমার উপরে আত্রাই নদীর পানি, প্লাবিত মানুষের মাঝে শুকনো খাবার ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো:তাজ উদ্দিন বিদ্যুৎ স্পষ্ট হয়ে ৫ জনের মৃত্যু। ভোলা জেলার ১০টি থানার মধ্যে ২টি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদেরকে (ওসি) বদলি করা হয়েছে। বনবিড়াল উদ্ধার স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে যুবলীগ কর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ হতে হবে-হুইপ মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা দিনাজপুরে যাত্রীবাহী বাস ও আমবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত পাঁচজন লোহাগড়ায় সড়কের বিষফোঁড়া ভ্যান ও ইজিবাইক

লোহাগড়া পৌর সভার সড়কের বেহাল দশা পায়ে পায়ে হোঁচট খাচ্ছে মানুষ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ জুলাই, ২০২৪
  • ৭ বার পঠিত

রাশেদ রাসু জেলা প্রতিনিধি নড়াইল,

নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা কাদা পানিতে হয়ে পড়ে চলাচলের অনুপযোগী।

পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক ও ড্রেনেজের বেহাল দশায় সামান্য বৃষ্টিতেই সড়ক ও বাজারে পানি জমে থাকায় ব্যবসায়ীদের ভোগান্তি যেন চরম আকার ধারণ করেছে। বর্ষাকাল আসতে না আসতেই শহরের এ অবস্থায় নাজেহাল পৌরবাসী।

দীর্ঘদিন ধরে সড়ক ও ড্রেনেজের এমন বেহাল দশা থাকলেও ব্যবস্থায় উদ্যোগ নেই কর্তৃপক্ষের, এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

সোমবার (১ জুলাই) লোহাগড়া পৌর শহরের বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন অলিগলি সড়কগুলোতে পানি থৈ থৈ করছে। কোথাও কোথাও পানি হাঁটু সমান। পানি বের হওয়ার রাস্তা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ অবস্থায় ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা চরম বিপাকে পড়েছেন। ময়লা পানির ভ্যাপসা গন্ধে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকিও।

জলাবদ্ধতা ও সড়কে কাদা পানি সৃষ্ট হওয়ায় শহরের বেশকটি এলাকার ভুক্তভোগীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, আমরা পানিতে ডুবলেও খোঁজ নিতে আসেন না কোনো কাউন্সিলর, এমনকি মেয়রও। শহরবাসী দীর্ঘ বছর ধরে এমন ভোগান্তি পোহালেও পৌর কর্তৃপক্ষ জলাবদ্ধতা ও সড়ক সংস্কারে নিচ্ছেন না কোনো ব্যবস্থা।

বৃষ্টির পানি জমে লোহাগড়া বাজারের প্রত্যেকটি সড়কে কাদা পানি জমে চলাচলের একদমই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবেশদ্বার, ফয়েজ মোড় এলাকা, বাজারে ঢোকার প্রধান সড়ক, স্বর্ণপট্টি সহ প্রত্যেকটা সড়কের একই অবস্থা। ড্রেনেজগুলোর বেহাল দশার কারণেই এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ ব্যবসায়ী ও পথচারীদের।

লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এস এম হায়াতুজ্জামান বলেন, বৃষ্টি হলেই পৌরসভার বিভিন্ন অলিগলির সড়কগুলো কাদা পানিতে চলাচলে ভোগান্তিসহ সাধারণ মানুষের কষ্ট বাড়ে। অনেক এলাকায় বাড়িঘরেও পানি উঠে যায়। চরম দুর্ভোগ নিয়ে চলতে হচ্ছে শহরবাসীকে। তাই শহরবাসীর জন্য প্রয়োজন সড়কগুলো সংস্করণন ও আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা।

পোদ্দার পাড়া এলাকার বাসিন্দা ময়নুল জানান, অপরিকল্পিত নগরায়ণ, রাস্তাঘাটের বেহাল দশা ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পানি নিষ্কাশনের অভাবে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। র্দীঘদিন ধরে জলাবদ্ধতায় শহরবাসী ভোগান্তি পোহালেও পৌর কর্তৃপক্ষ সমস্যাটির সমাধানে কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছেন না।

এ বিষয়ে লোহাগড়া পৌরসভার মেয়র সৈয়দ মশিউর রহমান বলেন, লোহাগড়া বাজার সহ পৌরসহরের বিভিন্ন সড়ক গুলোর খোঁজখবর নিয়েছি প্রকল্প আসলে প্রতিটি কাজ বাস্তবায়ন করা হবে৷

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর